দূরপাল্লার পরিবহন চালুর দাবিতে গাবতলীতে শ্রমিকদের অবস্থান – bnewsbd.com

জাতীয়

নিজস্ব প্রতিনিধি, বিনিউজবিডি.ডটকম :

স্টাফ রিপোর্টার: মহামারি করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ সামলাতে কঠোর বিধিনিষেধে বন্ধ রয়েছ দূরপাল্লার পরিবহন চলাচল। গত ১৪ এপ্রিলেরর পর থেকে পরিবহন শ্রমিকরা দূরপাল্লার পরিবহন খুলে দেওয়াসহ তিন দফা দাবিতে জানিয়ে আসছিল। কিন্তু সে দাবি না মানায় তারা ঈদের দিন অবস্থান কর্মসূচির ঘোষণা দেয়।

শুক্রবার (১৪ মে) ঈদুল ফিতরের দিন পরিবহন শ্রমিকদের পূর্বঘোষিত কর্মসূচির আওতায় গাবতলীতে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে শ্রমিক নেতারা।

পরিবহন মালিকরা বলছেন, বিধিনিষেধে দূরপালল্লার পরিবহন ছাড়া দোকানপাটসহ সবকিছুই খোলা রয়েছে। গণপরিবহন বন্ধ থাকলেও সবাই ঠিকই বাইরে বের হচ্ছেন। কেনাকাটা করেছে এবং বাড়ি ফিরেছে। সংক্রামণও দিনদিন কমছে। তাই স্বাস্থ্যবিধি মেনেই পরিবহন চালানোর দাবি জানিয়েছেন পরিবহন মালিক ও শ্রমিক নেতারা।

এ বিষয়ে শ্রমিক নেতা শহীদুল ইসলাম শহীদ বলেন, করোনার কারণে গত বছর থেকেই ধাপে ধাপে লকডাউন দিয়েছে সরকার। সেজন্য বাস বন্ধ রাখতে হয়েছে মাসের পর মাস। বাস বন্ধ থাকায় আমাদের পরিবহনের লাখ লাখ শ্রমিক এখন খুব কষ্টে দিন যাপন করছে। এ পরিস্থিতিতে পরিবহনের সঙ্গে যুক্ত শ্রমিকরা খেয়ে না খেয়ে দিন পার করছে।

তিনি বলেন, লকডাউনের মধ্যে দোকানপাট, শপিংমল খোলা, কিন্তু পরিবহন বন্ধ বিষয়টা কেমন হলো বলেন? গণপরিবহন বন্ধ থাকায় মানুষ ঘর থেকে বের হচ্ছে না, এমন তো না। সবাই বের হচ্ছেন কেনাকাটাও করেছে এবং স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা করে লাখ লাখ মানুষ বাড়ি ফিরেছে। তাছাড়া পরিবহন চলু করলে, আমরা স্বাস্থ্যবিধি মেনেই গাড়ি চালাবো। এর আগেও সরকারের নির্দেশনা মেনে অর্ধেক যাত্রী নিয়ে বাস চালিয়েছি। তাতে করোনার ঝুঁকি মোটামুটি কমই ছিল।

এই শ্রমিক নেতা আরও বলেন, বেশিরভাগ যানবাহন কেনা হয় বিভিন্ন ব্যাংকের কাছ থেকে ঋণের মাধ্যমে। ফলে বাসগুলোর বিপরীতে ঋণের বোঝা পরিবহন মালিকদের কাছে করোনা সংক্রমণের ভয়ের চেয়ে বড় হয়ে উঠেছে। অনেক পরিবহন মালিক দেউলিয়া হয়ে যাচ্ছে। এ অবস্থায় পরিবহন চালু করা অতি জরুরি।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্যাহ বলেন, প্রতিদিন লাখ লাখ যাত্রী গণপরিবহনে সড়ক পথে যাতায়াত করে। করোনা সংক্রমণ রোধে গত ৫ এপ্রিল থেকে দ্বিতীয় দফায় লকডাউনে মালিক-শ্রমিক, কর্মচারীরা পরিবার পরিজন নিয়ে এক মানবেতর জীবনযাপন করছে।

তিনি বলেন, লকডাউনে গণপরিবহন বন্ধ রয়েছে, কিন্তু ব্যয় কমেনি। কাউন্টার ভাড়া, গ্যারেজ ভাড়া, স্টাফ বেতন, পার্কিং চার্জ, গাড়ি পাহারা ও পার্টস ড্যামেজ। সব মিলিয়ে দৈনিক প্রতিটি কোম্পানি বড় অংকের ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে। 

তিনি আরও বলেন, আমরা সরকারের ওপর মহলের সঙ্গে আলাপ আলোচনা করছি। আমরা চাই দোকানপাট শপিংমল যেভাবে খুলে দেওয়া হয়েছে সেভাবে গণপরিবহনও চালু করা হোক। আমরা সরকারের দেওয়া শর্ত মেনেই পরিবহন চালাতে চাই।

বিনিউজবিডি.ডটকম

আধুনিক বাংলাদেশ গড়ার দৃঢ় প্রত্যয়ে সংবাদ পরিবেশনে দৃঢ় প্রতিশ্রুতিবদ্ধ নিয়ে “বিনিউজবিডি.ডটকম” বাংলাদেশের প্রতিটি বিভাগ, জেলা, উপজেলা, গ্রামে-গঞ্জে ঘটে যাওয়া দৈনন্দিন ঘটনাবলী যা মানুষের দৃষ্টি ও উপলব্ধিতে নাড়া দেয় এরূপ ঘটনা যেমন, শিক্ষা,স্বাস্থ্য, পরিবেশ, সামাজিক উন্নয়ন, অপরাধ, দুর্ঘটনা ও অন্যান্য যে কোন আলোচিত বিষয়ের দৃষ্টি নন্দন তথ্য চিত্রসহ সংবাদ পাঠিয়ে সাংবাদিক হিসেবে নিজেকে আত্ম প্রকাশ করুন।

প্রতি মুহুর্তের খবর মুহুর্তেই পাঠকের মাঝে পৌছে দেয়ার লক্ষ্য কাজ করে যাচ্ছে একঝাঁক সাহসী তরুণ সংবাদ কর্মী। এরই ধারাবাহিকতায় স্বল্প সময়ের মধ্যে বাংলাদেশ সহ দেশের বাহিরে বিভিন্ন দেশে সংবাদদাতা নিয়োগ দেয়া হচ্ছে।

বিদেশের মাটিতে অবস্থানরত লেখা-লেখিতে আগ্রহী যে কোনো বাংলাদেশীও প্রবাসী নাগরিক “বিনিউজবিডি.ডটকম” এর সংবাদদাতা/প্রতিনিধি হিসেবে আবেদন করতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *