রায়পুরের সফল খামারী রাসেল – bnewsbd.com

সারাদেশ

নিজস্ব প্রতিনিধি, বিনিউজবিডি.ডটকম :

রায়পুর (লক্ষীপুর)সংবাদদাতা:ব্যাংক কর্মকর্তা হওয়ার ইচ্ছা থাকলেও ছাত্রজীবনে বাবার কারনে মেডিকেলে পড়তে হয়েছে। সে সময় থেকে তিনি বাবার কাছ থেকে ১০-২০ করে টাকা করে জমিয়ে ২০ হাজায় টাকায় একটি ছাগল কেনেন। ওই ছাগল থেকে ৩ টি বাচ্চা হয়। বাচ্ছা বিক্রি করেন এক লাখ টাকা।

সেখান থেকে আরো কিছু জমানো থেকে ২ লাখ টাকা দিয়ে একটি শংকর জাতের গাভী কেনেন ও দুটি ছাগল কেনেন তিনি। সেই থেকে গরু ও ছাগল পালনের যাত্রা শুরু তার।

১২ বছরে আগের শখ থেকে নেশা, নেশা থেকে জয় করে বর্তমানে তিনি কোটি টাকা মূল্যের ৫০টি ছাগল ও ২৫টি গরুর মালিক। তার খামারের নাম ‘রাসেল ডেইরি ফার্ম। গরু পালন, দুধ বিক্রি, গোবর, বায়োগ্যাস প্লান্ট, কেঁচো দিয়ে জৈবসার প্রস্তুত করে আজ তিনি প্রতিষ্ঠিত খামারি। ঢাকায় একটি প্যাথলজিতে টেকনেশিয়ান চাকুরি করেন। প্রতি শুক্রবার ও শনিবার বাড়ীতে এসে পরিবারের সদস্যের নিয়ে খামারটির পরিচর্যা করেন।

শুক্রবার (২১ মে) লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার মেঘনা নদী অধ্যুষিত চরাঞ্চল এলাকা, উত্তর চরবংশী ইউনিয়নের চরবংশী গ্রামের রাসেল ডেইরি ফার্ম ঘুরে এতথ্য জানা যায়।

উত্তর-চরবংশী গ্রামের কৃষক পরিবারের সন্তান যুবক রাসেলের গরু ও ছাগল পালন দেখে অনেকেই উদ্বুদ্ধ। তার পরামর্শ নিয়ে ওই গ্রামের অর্ধশতাধিক বেকার এখন খামার করার প্রক্রিয়া।

সরেজমিন গিয়ে রাসেলের ডেইরি ফার্মে দেখা যায়, প্রায় ৪০ শতাংশ জমির উপরে খামার গড়ে তুলেছেন রাসেল। সারি সারি বাঁধা রয়েছে বকনা গরু ও ছাগল। একটি গাভী ও একটি ছাগল থেকে বংশবৃদ্ধি। সেই ২০১০ সালে ফিজিয়ান জাতের একটি গাভী থেকেই প্রজনন সম্প্রসারণ শুরু। বর্তমানে খামারে ২টি ষাঁড়, ১৫টি গাভি ও ১০টি বাছুর সর্বমোট ২৫টি গরু। এখানে একই জাতের গরু, অন্য কোনো জাত নেই। বর্তমানে দুধ দিচ্ছে ১৫টি গাভী। প্রতিদিন ১০০ লিটার দুধ দেয় তারা। গাভীর বাছুরগুলোকে যত্নে রাখা হয়েছে যেন কোনো রোগবালাই না হয়। তার ফার্মে ১০ হাজার টাকা থেকে ৫ লাখ টাকা মুল্যের ছাগল রয়েছে।

নিজ বাড়িতে তিনি দেশীয় জাতের ব্লাক ব্যাঙ্গল ছাগল, মোরগ-মুরগি, কবুতর পালনও শুরু করছে। আরো বড় পরিসরে খামার বাড়ানোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন রাসেল। সবকিছুই বেশ পরিপাটি।

গরু ও ছাগলের সফল খামারি রাসেল ঢালি তার অনুভূতি ব্যক্ত করে বলেন, ইচ্ছে ছিল ব্যাংকার হবো। কিন্তু মেডিকেল লাইনে পড়তে গিয়ে স্বপ্ন ভঙ্গ হয়। আজ খামারের পরিধি বেড়েছে অনেক। খামারে গাভীন গরুর সংখ্যা বেশি। বর্তমানে ১৫টি গাভী থেকে ১শ লিটার দুধ বিক্রি করা হয় ১৫ হাজার টাকা। খামারের বাছুরই হলো লাভের অংশ। বছর শেষে ৪০টি বাচ্চা হয় সাধারণত। বাছুর থেকে আয় হয় প্রায় ২ লাখ ১০ হাজার টাকা। বর্তমানে সর্বসাকুল্য তার দেড় কোটি টাকার গরু ও ছাগল রয়েছে। তার খামারে বোয়ার, তোতাপুরি, হারিয়ানা, বিটল, শিরহি ও যমুনাপারি নামের জাতের ছাগল রয়েছে। তার খামারে পিতা, মাতা, স্ত্রী, ভাইসহ ৫ জন কর্মচারি সহযোগিতা করে । তার সাথে সরকারি সহযোগিতা পেলে খামারটা বড় করতে পারবেন। তরুণ গরু খামারিদের উদ্দ্যেশে রাসেল বলেন, গরুর বা ছাগলের মালিকের ভবিষ্যৎ আয় হলো বাছুর।বাছুরকে দুধ খেতে দিলে আয় বৃদ্ধি ও  ভবিষ্যৎ ইনভেস্ট হবে।আমার মত সফল খামারি হতে হলে, খামারের পরিসর বাড়াতে  অবশ্যই যে বিষয়টি গুরুত্ব দিতে হবে তাহলো গরু বাড়লে থাকার ঘরের ব্যবস্থা করতে হবে। গরুর দুধের দাম কম, খাদ্যের দাম বেশি।খাদ্যের খরচ কমাতে একটু প্রযুক্তি নির্ভর হতে হবে। কাঁচা ঘাসের কোনো বিকল্প নাই।

স্হানীয় এলাকার লোকজন জানান, রাসেল-একজন সফল খামারি। মানুষের কাছে খাঁটি দুধ,দুগ্ধজাত পন্য পৌঁছে দেয়ার উদ্দেশ্যে বাজার মূল্যে  খাঁটি দুধ পাওয়াতে ভোক্তাদের কাছেও এ দুধের জনপ্রিয়তা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। এ ছাড়াও এ দুধের ব্যাপক চাহিদা তৈরী হচ্ছে।

রায়পুর উপজেলার চরবংশী ও চরআবাবিল ইউনিয়নে এখন কম-বেশি একটি করে ছোট্ট খামার সবারই বাড়িতে রয়েছে। রাসেলকে দেখে সবাই উদ্বুদ্ধ হয়েছেন। রাসেল ঢালি ব্যাংকার হতে চেয়েছিলেন? মেডিকেলে ভর্তির কারনে তা পারেননি। একমাত্র ছেলেকে উচ্চশিক্ষিত করে দায়িত্ব বুঝিয়ে দেবেন।

রায়পুর উপজেলার  উত্তর চরবংশী ইউনিয়নের সফল চেয়ারম্যান হোসেন আহাম্মদ জানান, বর্তমান কৃষিতে অনেকে সাফল্য অর্জন করেছেন।সরকারের কাছে প্রত্যাশা চরবংশীতে এখন যে পরিমাণ দুধ উৎপাদন হয়, সে পরিমাণে দুধ বিক্রির করার জায়গা নেই। যদি সরকারিভাবে এই অঞ্চলে একটি দুগ্ধ শিল্প প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা যেত তাহলে দুধ থেকে সাধারণত যে সব খাদ্য তৈরি হয় তা ক্রয় করতে এই চরবংশীর মানুষকে আর বাইরে যেতে হবে না।রায়পুর উপজেলা প্রানী সম্পদ কর্মকর্তা আতাউর রহমান  বলেন, রাসেল ঢাকায় একটি প্যাথলজিতে চাকুরির পাশাপাশি দু’দিন বাড়ীতে থেকে গরু ও ছাগলের খামারের দেখাশুনা করে। প্রতিদিনই তার খামারের খোঁজ নেয়া হয়। গরু ও ছাগলগুলোকে ভ্যাকসিন দেয়া হয়। তার দেখায় অনেক যুবকও হাসপাতালে এসে পরামর্শ নিয়েছে। সরকারের কাছ থেকে রাসেলকে সহযোগিতার জন্য আমরাও চেষ্টা করবো।

বিনিউজবিডি.ডটকম

আধুনিক বাংলাদেশ গড়ার দৃঢ় প্রত্যয়ে সংবাদ পরিবেশনে দৃঢ় প্রতিশ্রুতিবদ্ধ নিয়ে “বিনিউজবিডি.ডটকম” বাংলাদেশের প্রতিটি বিভাগ, জেলা, উপজেলা, গ্রামে-গঞ্জে ঘটে যাওয়া দৈনন্দিন ঘটনাবলী যা মানুষের দৃষ্টি ও উপলব্ধিতে নাড়া দেয় এরূপ ঘটনা যেমন, শিক্ষা,স্বাস্থ্য, পরিবেশ, সামাজিক উন্নয়ন, অপরাধ, দুর্ঘটনা ও অন্যান্য যে কোন আলোচিত বিষয়ের দৃষ্টি নন্দন তথ্য চিত্রসহ সংবাদ পাঠিয়ে সাংবাদিক হিসেবে নিজেকে আত্ম প্রকাশ করুন।

প্রতি মুহুর্তের খবর মুহুর্তেই পাঠকের মাঝে পৌছে দেয়ার লক্ষ্য কাজ করে যাচ্ছে একঝাঁক সাহসী তরুণ সংবাদ কর্মী। এরই ধারাবাহিকতায় স্বল্প সময়ের মধ্যে বাংলাদেশ সহ দেশের বাহিরে বিভিন্ন দেশে সংবাদদাতা নিয়োগ দেয়া হচ্ছে।

বিদেশের মাটিতে অবস্থানরত লেখা-লেখিতে আগ্রহী যে কোনো বাংলাদেশীও প্রবাসী নাগরিক “বিনিউজবিডি.ডটকম” এর সংবাদদাতা/প্রতিনিধি হিসেবে আবেদন করতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *