কারখানার সামনে মায়ের অপেক্ষায় আঁখি       – bnewsbd.com

স্বাস্থ্য-চিকিৎসা

নিজস্ব প্রতিনিধি, বিনিউজবিডি.ডটকম :

নবম শ্রেণিতে পড়ুয়া আঁখি খুঁজতে এসেছে মায়ের লাশ। বুধবার রাতে মায়ের সঙ্গে শেষ দেখা হয়েছিল তার। বৃহস্পতিবার খুব সকালে মা যখন কাজে বেরিয়েছে তখন ঘুমিয়ে ছিল আঁখি। আজ শুক্রবার বিকালে ঘটনাস্থলের একটু দূরে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেল তাকে। যে ভবনে আগুন লেগে মায়ের মৃত্যু হয়েছে সেই ভবনের দিকে তাকিয়ে আছে সে। তার মায়ের বিষয়ে জানতে চাইলে হাউমাউ করে কেঁদে ওঠে আঁখি। তার চোখের জল কাঁদিয়েছে উপস্থিত অনেককেই। তার গগনবিদারী চিৎকারে ভারী হয়ে ওঠে সেখানকার পরিবেশ। মা হারা সন্তানের এমন করুণ আকুতির সান্ত্বনা দেওয়ার ভাষা জানা নেই কারোরই। ভুলতা গাউছিয়া এলাকার মুজিবুর রহমান ভূঁইয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের পড়ালেখা করে আঁখি।   

শিশুটি এসেছে মায়ের লাশ খুঁজতে। সঙ্গে ছিল প্রতিবেশী কয়েকজন। তারা জানায়, বড় ভাই দেলোয়ার ঢাকা মেডিকেলের মর্গে মায়ের লাশ খুঁজতে গেছেন। আঁখির বাবা ভুলকা এলাকার চায়ের দোকানদার। 

মা আর কখনো ফিরে আসবে না আঁখির মত এমন অনেকেই সেখানে ছিল। তারাও স্বজনের লাশ খুঁজে ফিরছেন।   

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের হাশেম ফুড অ্যান্ড বেভারেজ কারখানার আগুন কেড়ে নিয়েছে আঁখির মত অনেকেরই স্বপ্ন। পরিবারের একমাত্র আয়ের মানুষটিকে হারিয়েছেন কেউ কেউ। 

নিখোঁজের তালিকাটা অনেক দীর্ঘ হচ্ছে। আরও অনেক মানুষ তাদের স্বজনদের খোঁজে ভিড় করছেন পুড়ে যাওয়া কারখানাটির আশেপাশে। 

বিনিউজবিডি.ডটকম

আধুনিক বাংলাদেশ গড়ার দৃঢ় প্রত্যয়ে সংবাদ পরিবেশনে দৃঢ় প্রতিশ্রুতিবদ্ধ নিয়ে “বিনিউজবিডি.ডটকম” বাংলাদেশের প্রতিটি বিভাগ, জেলা, উপজেলা, গ্রামে-গঞ্জে ঘটে যাওয়া দৈনন্দিন ঘটনাবলী যা মানুষের দৃষ্টি ও উপলব্ধিতে নাড়া দেয় এরূপ ঘটনা যেমন, শিক্ষা,স্বাস্থ্য, পরিবেশ, সামাজিক উন্নয়ন, অপরাধ, দুর্ঘটনা ও অন্যান্য যে কোন আলোচিত বিষয়ের দৃষ্টি নন্দন তথ্য চিত্রসহ সংবাদ পাঠিয়ে সাংবাদিক হিসেবে নিজেকে আত্ম প্রকাশ করুন।

প্রতি মুহুর্তের খবর মুহুর্তেই পাঠকের মাঝে পৌছে দেয়ার লক্ষ্য কাজ করে যাচ্ছে একঝাঁক সাহসী তরুণ সংবাদ কর্মী। এরই ধারাবাহিকতায় স্বল্প সময়ের মধ্যে বাংলাদেশ সহ দেশের বাহিরে বিভিন্ন দেশে সংবাদদাতা নিয়োগ দেয়া হচ্ছে।

বিদেশের মাটিতে অবস্থানরত লেখা-লেখিতে আগ্রহী যে কোনো বাংলাদেশীও প্রবাসী নাগরিক “বিনিউজবিডি.ডটকম” এর সংবাদদাতা/প্রতিনিধি হিসেবে আবেদন করতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *