সহায়তার সুফল গরিবরা পাবে? – bnewsbd.com

শিক্ষা-সংস্কৃতি

নিজস্ব প্রতিনিধি, বিনিউজবিডি.ডটকম :

এটা সুখবরই বটে। একটু হলেও ওদের জন্য তা স্বস্তিদায়ক। অতিদরিদ্র, দিনমজুর, গরিব-অসহায় মানুষের জন্য প্রধানমন্ত্রী নতুন করে আরও একটি প্রণোদনা প্যাকেজ দিয়েছেন। সব মিলিয়ে বিভিন্ন খাতের জন্য মোট ৩ হাজার ২০০ কোটি টাকার প্যাকেজটি এই সংকটকালে বেশ আশাজাগানিয়া।

বলা হয়েছে, এসব প্যাকেজের আওতায় দিনমজুর, পরিবহন শ্রমিক, ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী এবং নৌপরিবহন শ্রমিকসহ ১৭ লাখের বেশি অসহায় মানুষ জনপ্রতি নগদ ২ হাজার ৫০০ টাকা করে আর্থিক সহায়তা পাবেন। শহর এলাকায় নিম্ন আয়ের জনসাধারণের জন্য ওএমএস কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে। এ ছাড়া আরও বেশ কয়েকটি খাতে সহায়তা দেওয়া হয়েছে।

করোনাকালে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত এসব শ্রেণির অসহায় মানুষ। তাঁদের অনেকে কাজ হারিয়েছেন। কেউ এক বেলা খাবার জোগাতেও হিমশিম খাচ্ছেন। বিপন্নপ্রায় এসব মানুষের পাশে বেসরকারি বা সচ্ছল ব্যক্তি খাতকে এগিয়ে আসতে দেখা যায়নি। এমনকি বিভিন্ন সময়ে সরকারের কাছ থেকে নীতিসহায়তা নিয়ে বিপুল মুনাফা লাভকারী প্রতিষ্ঠানকেও তাদের সিএসআর বা প্রাতিষ্ঠানিক দায়বদ্ধতার অংশ হিসেবেও খুব একটা সহায়তার হাত বাড়াতে দেখা যায়নি। করোনায় কিছু কিছু খাত টিকে থাকার লড়াই করছে সন্দেহ নেই; তবে অনেক প্রতিষ্ঠানই এই সংকটেও ভালো ব্যবসা করছে। তারা সরকার থেকে বিপুল অঙ্কের আর্থিক প্রণোদনাও পেয়েছে। তাদের এই বিপন্ন মানুষের পাশে সংবেদনশীল হয়ে সাড়া দিতে দেখা যায়নি। অবশেষে শেষ ভরসাস্থল হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাই সাড়া দিয়েছেন। বরাবরের মতো তিনিই বিপুল একটি দরিদ্র জনগোষ্ঠীর পাশে দাঁড়ালেন।

তবে যতই প্রণোদনা দেওয়া হোক না কেন, এর বিতরণব্যবস্থা নিয়ে বিতর্ক আছে। এর আগেও প্রধানমন্ত্রী দফায় দফায় অর্থ ও খাদ্যসহায়তা দিয়েছেন। তা সত্যিকার অর্থে অনেক সুবিধাভোগীর কাছে পৌঁছায়নি। সমাজের একশ্রেণির প্রভাবশালী, দলীয় জনপ্রতিনিধি নানান অনিয়ম করে তার একটি অংশ নিজেদের পকেটে পুরেছেন। প্রধানমন্ত্রীর উদার, মানবিক ও সৎ উদ্দেশ্যকে তাঁরা প্রশ্নবিদ্ধ করেছেন। এই সম্প্রতি ঘরহীন দরিদ্র মানুষের জন্য ঘর বানিয়ে দেওয়া প্রকল্পেও আমরা তা দেখেছি।

কথা হলো, কল্যাণকামী রাষ্ট্র হিসেবে শেষ পর্যন্ত সরকারই অসহায়দের পাশে থাকবে–এটাই স্বাভাবিক। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও শতভাগ সংবেদনশীলতার সঙ্গেই সাড়া দিয়েছেন। তবে এখন দেখতে হবে, গরিবের হক যেন কতিপয় লুটেরা, দুর্নীতিবাজ আর সমাজের মুখচেনা দলীয় স্বার্থান্বেষী গোষ্ঠীর পকেটে না যায়–তা নিশ্চিত করতে হবে। যাঁরাই এবার এ ধরনের অপকর্মের সঙ্গে জড়াবেন, তাঁদের কঠোর শাস্তির আওতায় আনতে হবে। কারণ, এটা জনগণেরই টাকা। এ টাকা সত্যিকার অর্থে যাঁরা এ মুহূর্তে খাবার পাচ্ছেন না, চলতে পারছেন না–তাঁদের হাতে পৌঁছানোর জন্য যা করণীয় সব করতে হবে। এমনিতে দুঃসময়ে কাউকে পাশে পাওয়া যাবে না, আবার সরকার এগিয়ে এলে তার সুফলও সুবিধাভোগীরা পাবেন না–এটা হতে পারে না।

বিনিউজবিডি.ডটকম

আধুনিক বাংলাদেশ গড়ার দৃঢ় প্রত্যয়ে সংবাদ পরিবেশনে দৃঢ় প্রতিশ্রুতিবদ্ধ নিয়ে “বিনিউজবিডি.ডটকম” বাংলাদেশের প্রতিটি বিভাগ, জেলা, উপজেলা, গ্রামে-গঞ্জে ঘটে যাওয়া দৈনন্দিন ঘটনাবলী যা মানুষের দৃষ্টি ও উপলব্ধিতে নাড়া দেয় এরূপ ঘটনা যেমন, শিক্ষা,স্বাস্থ্য, পরিবেশ, সামাজিক উন্নয়ন, অপরাধ, দুর্ঘটনা ও অন্যান্য যে কোন আলোচিত বিষয়ের দৃষ্টি নন্দন তথ্য চিত্রসহ সংবাদ পাঠিয়ে সাংবাদিক হিসেবে নিজেকে আত্ম প্রকাশ করুন।

প্রতি মুহুর্তের খবর মুহুর্তেই পাঠকের মাঝে পৌছে দেয়ার লক্ষ্য কাজ করে যাচ্ছে একঝাঁক সাহসী তরুণ সংবাদ কর্মী। এরই ধারাবাহিকতায় স্বল্প সময়ের মধ্যে বাংলাদেশ সহ দেশের বাহিরে বিভিন্ন দেশে সংবাদদাতা নিয়োগ দেয়া হচ্ছে।

বিদেশের মাটিতে অবস্থানরত লেখা-লেখিতে আগ্রহী যে কোনো বাংলাদেশীও প্রবাসী নাগরিক “বিনিউজবিডি.ডটকম” এর সংবাদদাতা/প্রতিনিধি হিসেবে আবেদন করতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *